জাকির নায়েকের বক্তব্য দেয়া নিষিদ্ধ করল মালয়েশিয়া

0
ছবি : সংগৃহিত

তরঙ্গ বার্তা অনলাইন ডেস্ক: এবার মালয়েশিয়ার সব প্রদেশেই নিষিদ্ধ হলেন জাকির নায়েক। জাতীয় নিরাপত্তার স্বার্থেই এমন পদক্ষেপ নেয়া হয়েছে বলে জানিয়েছে মালয়েশিয়ার পুলিশ।

এর আগে মালয়েশিয়ার সাত প্রদেশে তার বক্তৃতা দেয়ায় নিষেধাজ্ঞা আনা হয়েছে। প্রদেশগুলো হলো- জোহর, সেলাংগর, পেনাং, কেদাহ, পেরলিস, সারাওয়াক এবং মেলাকা।

সাম্প্রতিক সময়ে এক অনুষ্ঠানে বক্তৃতায় মালয়েশিয়ায় বসবাসরত ভারতীয় হিন্দু এবং চীনাদের নিয়ে বিতর্কিত মন্তব্য করেন জাকির নায়েক।

ওই অনুষ্ঠানে তিনি মালয়েশিয়ায় বসবাসরত চীনা বংশোদ্ভূত নাগরিকদের দেশে ফিরে যাওয়ার আহ্বান জানান। একই সঙ্গে তিনি বলেন, ভারতের সংখ্যালঘু মুসলিমদের চেয়ে মালয়েশিয়ার সংখ্যালঘু হিন্দুরা ১০০ গুণ বেশি অধিকার ভোগ করছেন।

তার এমন মন্তব্যকে ঘিরেই বিতর্ক শুরু হয়। এরপরেই মালয়েশিয়ার তিন মন্ত্রী তার স্থায়ী নাগরিকত্ব কেড়ে নেবার আহ্বান জানান।

এর আগে গত রোববার মালয়েশিয়ার প্রধানমন্ত্রী ড. মাহাথির মোহাম্মদ বলেন, চীনা বংশোদ্ভূত নাগরিকদের দেশে ফিরে যাওয়ার কথা বলে সীমা লঙ্ঘন করেছেন জাকির নায়েক। সংখ্যালঘুদের নিয়ে বিতর্কিত মন্তব্য করে জাকির নায়েক মালয়েশিয়ায় শান্তি নষ্ট করছেন বলে অভিযোগ উঠেছে।

এদিকে, নিজের বিতর্কিত মন্তব্যের জন্য ক্ষমা চেয়ে জাকির নায়েক জানান, প্রকৃতপক্ষে তিনি মোটেও বর্ণবাদী নন। অভিযোগ করে তিনি বলেছেন, তার সমালোচকরা তার বক্তব্যকে ভুলভাবে নিয়েছেন এবং তার বক্তব্যে মনগড়া কথা যোগ করা হয়েছে।

তিনি বলেন, যদিও আমি আমার বক্তব্য পরিষ্কার করেছি। কিন্তু তবুও আমার কথায় যদি কেউ কষ্ট পেয়ে থাকেন তবে তার জন্য আমি ক্ষমা চাচ্ছি। এখানে কিছু ভুল বোঝাবুঝি হয়েছে। আমি কারো অনুভূতিতে আঘাত করতে চাই না।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here