বাড়ি বসে বই খুলেই পরীক্ষা দেবে কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ের স্নাতক ও স্নাতকোত্তরে ছাত্রছাত্রীরা, উত্তরপত্র পাঠাবে মেল বা হোয়াটসঅ্যাপে!

0
ছবি: সংগৃহিত

হোয়াটসঅ্যাপ কিংবা ই-মেলের মাধ্যমে পড়ুয়ার কাছে প্রশ্নপত্র পাঠানো হবে। তারপর, মজা করে, বই বা নোট খুলে দেখে দেখে, ধীরে-সুস্থ উত্তরপত্র লেখা। লেখার পরে উত্তরপত্রের পাতার ছবি তুলে ফের মেল বা হোয়াটসঅ্যাপ করে দিলেই হল!

হ্যাঁ, বই দেখে লেখার (Open Book Examination) এমনই আজব পরীক্ষা হবে কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ের (Calcutta University) স্নাতক ও স্নাতকোত্তরে (UG and PG)। অতিমারি করোনার কারণে এমন সিদ্ধান্ত। ‘ওপেন বুক এক্সাম’ চলবে ১ থেকে ১৮ অক্টোবর পর্যন্ত।

ইউজিসি’র (UGC) সাম্প্রতিক গাইডলাইন অনুযায়ী, দেশের সমস্ত কলেজ-বিশ্ববিদ্যালয়গুলিতে স্নাতক ও স্নাতকোত্তরের চূড়ান্ত বর্ষের পরীক্ষা নিতেই হবে। সুপ্রিম কোর্টও তাতে সিলমোহর দিয়েছে। সেইমতো পশ্চিমবঙ্গের কলেজ, বিশ্ববিদ্যালয়গুলিতে পরীক্ষার তোড়জোড় শুরু হয়।

মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (Mamata Banerjee) নির্দেশ দিয়েছিলেন, এক সপ্তাহের মধ্যে সমস্ত পরিকল্পনা ঠিক করার। তা মেনে করোনা আবহে কীভাবে পরীক্ষা নেওয়া হয়, তার রূপরেখা স্থির করতে গত সোমবার বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যদের সঙ্গে ভারচুয়াল বৈঠকে বসেছিলেন শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়।

সেখানেই ঠিক হয়, অফলাইনে নয়, সর্বত্র অনলাইনেই পরীক্ষা নেওয়া হবে। থাকবে হোম অ্যাসেসমেন্ট। অক্টোবরের ১ থেকে ১৮ তারিখের মধ্যে পরীক্ষা সম্পূর্ণ করতে হবে। অক্টোবর মাসের মধ্যেই প্রকাশ করতে হবে ফলাফল। ঠিক কীভাবে হবে পরীক্ষা? বুধবার সেই সিদ্ধান্তের কথা জানাল কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়।

কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ে ১৫০টি কলেজের লক্ষাধিক পড়ুয়া পরীক্ষা দেবে। সিলেবাস যতটুকু শেষ হয়েছে তার উপর ভিত্তি করেই নেওয়া হবে পরীক্ষা। ছাত্রছাত্রীদের উত্তরপত্র দেখবেন সংশ্লিষ্ট কলেজের অধ্যাপকরা।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here