অন্তিম সৎকারের আগে বেঁচে ওঠলেন করোনায় মৃত রোগী, মহারাষ্ট্রে শোরগোল

0

মৃত মানুষ কখনো বেঁচে ওঠতে পারেনা, তবে মহারাষ্ট্রের একটি হাসপাতালে ঘটেছে এমনই এক অবিশ্বাস্য ঘটনা। অন্তিম সৎকারের প্রস্তুতির মধ্যেই হাসপাতাল থেকে পরিবারকে জানানো হলো সুখবরটি।

করোনার দ্বিতীয় ঢেউ বিশ্বের অন্যান্য প্ৰান্তরের পাশাপাশি ভারতেও আতঙ্কের সৃষ্টি করেছে। বিশেষ করে মহারাষ্ট্ৰে করোনার সংক্ৰমণ পুনরায় কল্পনাতীতভাবে বৃদ্ধি পেয়েছে।

মহারাষ্ট্ৰের নাগপুরে এক মহিলা করোনা আক্ৰান্ত হয়ে হাসপাতালে ভৰ্তি হয়েছিলেন।হাসপাতালে ভৰ্তি হওয়ার ২৪ ঘন্টার ভিতরে কর্তৃপক্ষ মহিলাটিকে মৃত বলে ঘোষণা করেন।

এই খবর পরিবারের লোকজনকে জানানো হয়। কিন্তু এর কিছু সময় পরই পরিবারের কাছে আসে এক আরেক খবর। আর এই খবরেই চতুর্দিকে শোরগোল পড়ে যায়।

শুক্রবার নাগপুরের ৬৩ বছরের এক করোনা আক্রান্ত মহিলাকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। শনিবার হাসপাতাল থেকে পরিবারের কাছে ফোন করে জানানো হয় যে রোগীর মৃত্যু হয়েছে। ফোন পেয়েই পরিবারের লোকজন অবাক হয়ে যান এবং তড়িঘড়ি হাসপাতালের দিকে ছুটে যান।

কিন্তু এর কিছু সময় পরই হাসপাতাল থেকে ফোন করে জানানো হয় যে রোগীর মৃত্যু হয়নি, ভুলবশত তাকে মৃত বলে ঘোষণা দেওয়া হয়েছে। পরে হাসপাতালে পৌঁছে রোগীর পরিবারের লোকজন দেখেন যে রোগীর ডেথ সার্টিফিকেট পর্যন্ত ইস্যু হয়ে গেছে। অথচ রোগী দিব্যি বেঁচে আছেন।

এনিয়ে রোগীর পরিবারের লোকজন হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের বিরুদ্ধে কোনো অভিযোগ না আনলেও তড়িঘড়ি রোগীকে এই হাসপাতাল থেকে সরিয়ে অন্য হাসপাতালে নিয়ে যান। এই হাসপাতালে রোগীকে রেখে রিস্ক নিতে চান না বলে তারা জানান।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here