ইরানের কৌশলগত গবেষণা বাধাগ্রস্ত করতে বিজ্ঞানী ফাখরিযাদেকে হত্যা করা হয়েছে: এইওআই’র সাবেক প্রধান

0

গুপ্তহত্যার শিকার হয়েছেন ইসলামি প্রজাতন্ত্র ইরানের বিশিষ্ট পদার্থবিজ্ঞানী মোহসেন ফাখরিযাদে। গত শুক্রবার দেশটির রাজধানী তেহরানের কাছে দামাভান্দ কাউন্টির আবসার্ড এলাকায় আততায়ীর গুলিতে তিনি নিহত হন।

এই হত্যাকাণ্ডের পর ইরানের আণবিক শক্তি সংস্থা বা এইওআই’র সাবেক প্রধান ও পরমাণু বিজ্ঞানী ফেরেইদুন আব্বাসি বলেছেন, দেশের কৌশলগত গবেষণাকর্ম বাধাগ্রস্ত করতে খ্যাতিমান বিজ্ঞানী মোহসেন ফাখরিযাদেকে শত্রুরা হত্যা করেছে। তবে শত্রুদের সমস্ত চাপ ইরান মোকাবেলা করবে।

ইরানের ইংরেজি ভাষার নিউজ চ্যানেল প্রেস টিভিকে দেয়া সাক্ষাতকারে ফেরেইদুন আব্বাসি বলেন, ১০ বছর আগে তিনি নিজেও হামলার শিকার হয়েছিলেন। এ ধরনের হামলার একটি অভিন্ন লক্ষ্য হচ্ছে ইরানের বৈজ্ঞানিক সমাজে ভীতি ছড়িয়ে দেয়া যাতে দেশের কৌশলগত গবেষণা বন্ধ হয়ে যায় এবং ইরান যাতে এসব ক্ষেত্রে সাফল্য অর্জন করতে না পারে।

তিনি বলেন, “শত্রুরা গুরুত্বপূর্ণ কিছু ব্যক্তিকে হত্যা করে আমাদের সমাজে ভীতি ছড়িয়ে দিতে চায় যাতে ইরানের কর্মকর্তারা তাদের সঙ্গে আলোচনায় বসতে বাধ্য হন। শত্রুরা অতীতে একই কাজ করেছে। তবে আমরা সমস্ত চাপ মোকাবেলা করে যাচ্ছি এবং আমাদের দেশ কোনো একজন ব্যক্তির উপর নির্ভরশীল নয়।” আব্বাসি জোর দিয়ে বলেন, “সমস্ত কষ্ট-ক্লেশ সত্ত্বেও আমরা পথচলা অব্যাহত রাখব।”

উল্লেখ্য, মোহসেন ফাখরিযাদে ছিলেন ইরানের সবচেয়ে প্রবীণ পরমাণু বিজ্ঞানী। তিনি ছিলেন ইরানের প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের গবেষণা ও উদ্ভাবনী সংস্থার প্রধান। তিনি ইরানের রেভরল্যুশনারি গার্ডের একজন ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাও ছিলেন, যাকে ‘ইরানে বোমার জনক’ বলা হয়। তার মর্যাদা ছিল মন্ত্রণালয়ের উপ-প্রতিরক্ষামন্ত্রী ও রেভরল্যুশনারি গার্ডের ব্রিগেডিয়ার জেনারেলের সমান।

সূত্র: পার্সটুডে

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here