গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠার দাবিতে ফের উত্তাল মায়ানমার, সেনার গুলিতে শিশু সহ হত ১১৪

0

ফের উত্তপ্ত হয়ে ওঠলো মায়ানমার।সেনার গুলিতে প্রাণ হারালেন শিশু সহ ১১৪ জন। শনিবার দেশটির রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর মুক্তির দাবিতে আন্দোলনে গুলি চালায় সেনা।

গত ফেব্রুয়ারি মাসে সেনা অভ্যুত্থান ঘটে মায়ানমারে। এরপর আং সান স্যুকি সহ দেশটির রাষ্ট্রপতিকে গ্রেফতার করে সেনা।এরপর গণতন্ত্র রক্ষার দাবিতে দফায় দফায় দেশের জনগণ আন্দোলন চালিয়ে যেতে থাকে।শনিবার স্বাধীনতাকামী নেত্রী আং সান স্যুকির মুক্তির দাবিতে লাখ লাখ মানুষ রাস্তায় নেমে প্রতিবাদ করতে থাকে। নেত্রীর মুক্তির দাবিতে উত্তাল হয়ে ওঠে দেশের প্রতিটি শহর। সেনাবাহিনীর রক্ত চক্ষু উপেক্ষা করে জনগণের এই প্রতিবাদে সেনার সঙ্গে বিভিন্ন জায়গায় সংঘর্ষ বাঁধে জনগণের। একসময় সেনাবাহিনী শহরের বিভিন্ন জায়গায় সহিংস হয়ে ওঠে এবং উত্তেজিত জনতার ওপর নির্বিচারে গুলি চালাতে থাকে। এতে শিশু মহিলা সহ নিহত হন ১১৪ জন নাগরিক।

চলতি বছরের ১ ফেব্রুয়ারি মায়ানমার সেনার হাতে চলে যায়। এরপর অশান্তি সৃষ্টি হয় দেশটিতে।গ্রেফতার করা হয় স্যুকি সহ রাষ্ট্রপতিকে। স্যুকির ক্ষমতা গ্রহণের আগে বহু বছর দেশটিতে সামরিক শাসন চলছিল।পরে দীর্ঘ কারা ভোগের পর মায়ানমারে গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠা করতে সক্ষম হন স্যুকি। দীর্ঘ দিন স্যুকির সরকার চলতে থাকে ।এরপর ফেব্রুয়ারিতে ফের সেনার হাতে চলে যায় মায়ানমার। শনিবার ফের গণতন্ত্রের পুনঃপ্রতিষ্ঠার দাবিতে উত্তাল হয়ে ওঠলে গুলি চালায় সেনা। এতে মারা যান শিশু মহিলা সহ১১৪।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here