‘আমার স্বামীকে ফাঁসানো হচ্ছে’, অভিযোগ বিদ্যুৎ কর্মী শংকর পালের স্ত্রী টিনা পালের

0
ছবি: নিজস্ব

পূর্ব পরিকল্পিত ভাবে আমার স্বামীকে মিথ্যা মামলায় ফাঁসানোর চেষ্টা চালিয়েছে কতিপয় দুষ্কৃতী। এ অভিযোগ উত্থাপন করেন কাটিগড়ার কালাইন বিদ্যুৎ বিভাগের কার্যালয়ের কর্মী শংকর পালের স্ত্রী টিনা পাল।

তিনি নিজে অন্তঃসত্ত্বা অবস্থায় গত ৩১ জুলাই তার ঘরের পরিচারিকা কাজল বৈষ্ণব (নাম পরিবর্তিত) ও ধনঞ্জয় বৈষ্ণবকে অভিযুক্ত করে কাটিগড়া থানায় একটি মামলাও দায়ের করেছেন। তার ঘর থেকে নগদ এগারো হাজার পাঁচশো টাকা নিয়ে পালিয়ে গেছে বলেও মামলায় উল্লেখ করেন টিনা পাল।

তার স্বামী প্রতিদিন এসে ঘরে কোথায় টাকা রাখতো তা ভালো করেই জানত ওই কাজের মেয়েটি। আর তা দেখেই ঐ জমা রাখা টাকা নিয়েই গত ২৭ জুলাই চম্পট দেয় মেয়েটি। ভোরে ঘুম থেকে ওঠে মেয়েটি ঘরে নেই দেখে প্রায় পাঁচ কিলোমিটার দূরবর্তী মৌগ্রামে তার বাড়িতে গিয়ে দেখা যায় সেখানেই তার পিতা ধনঞ্জয় বৈষ্ণবের সংঙ্গে রয়েছে মেয়েটি।

কাউকে না বলে পালিয়ে আসার কারণ জানতে চাইলে কোন সদুত্তর মিলেনি। চুরি করে নিয়ে আসা টাকার কথা জিজ্ঞেস করলে কোন সঠিক উত্তর দেননি অভিভাবকগণ।

আর এ ঘটনাকেই অতিরঞ্জিত করে মিথ্যা মামলায় ফাঁসানো হয়েছে তাঁর স্বামী শংকর পালকে বলে দাবি করেন স্ত্রী টিনা পাল। উপযুক্ত তদন্তের মাধ্যমে পুলিশকে সঠিক পদক্ষেপ গ্রহণ করার আবেদন জানান টিনা।

উল্লেখ্য, শংকর পালের বিরুদ্ধে গত ২৮ জুলাই একটি মামলা প্রদান করা হয়েছে। ওই মামলার প্রেক্ষিতে শংকর পাল বর্তমানে কাটিগড়া পুলিশের হেফাজতে রয়েছেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here