নাগরিকপঞ্জি নিয়ে বিজেপিকে কঠিন চ্যালেঞ্জ দিচ্ছেন মমতা, দিদির জনপ্রিয়তা বাড়ছে অসমে

0
ছবি : সংগৃহিত
তরঙ্গ বার্তা, ডিজিটাল ডেস্ক : জাতীয় নাগরিকপঞ্জি এবং নাগরিকত্ব সংশোধনী বিল নিয়ে জেরবার রাজ্যবাসী। বিশেষ করে বাঙালি হিন্দু-মুসলিম মানুষকে চরম হেনস্থার মুখে পড়তে হয়েছে। নাগরিকপঞ্জির খসড়া তালিকা থেকে ৪০ লক্ষ মানুষের নাম বাদ পড়েছে। তার মধ্যে ২২ লক্ষেরও বেশি ব্যক্তি বাঙালি হিন্দু।
বাদ পড়া এই ৪০ লক্ষ মানুষের ভাগ্য বৰ্তমানে অনিশ্চয়তার কবলে। তাদের জীবন জীবিকা কী হবে, কোন দেশে তারা থাকবে, প্রতিবেশী রাষ্ট্র বাংলাদেশ তাদের গ্রহণ করবে কিনা, তাদেরকে কি ডিটেনশন ক্যাম্পের অন্ধকার কুঠুরিতে ঠেলে দেওয়া হবে, তারা কি আর কখনও স্বাভাবিক জীবন যাপন করতে পারবে না- এইসব প্ৰশ্নই এখন বারেবারে ঘুরপাক খাচ্ছে সচেতন মহলে।
অনিশ্চিয়তায় ভরা এই মানুষগুলির বৰ্তমান, ভবিষ্যত সব কিছু নিয়েই বিজেপি সরকার চরম রাজনৈতিক খেলায় মেতেছে। সচেতন মহলের একটিই প্ৰশ্ন, কী অপরাধ করেছে এই মানুষগুলি। বড় লজ্জা এবং পরিতাপের বিষয়, ৪০ লক্ষ মানুষকেই ‘ঘুষপেটিয়া’ অৰ্থাৎ ‘অনুপ্রবেশকারী’ বলে বিজেপির সৰ্বভারতীয় সভাপতি অমিত শাহ বারেবারে বিভিন্ন জনসভায় উপহাস করে যাচ্ছেন।
এই বিষয় দুটি এমনই ভয়ানক, যে তা রাজ্যের সামাজিক জনজীবনকে বিপর্যস্ত করে তুলেছে। তার ফলে রাজ্যে এপর্যন্ত ৩৯ জন হিন্দু-মুসলিম বাঙালি আত্মঘাতী হতে বাধ্য হয়েছে বলে একাধিক সূত্রে অভিযোগ পাওয়া গেছে। পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বিজেপি সরকারের প্রতি চ্যালেঞ্জ ছুঁড়ে দিয়ে বলেছেন, “হিম্মত থাকে তো আমাদের রাজ্যে এনআরসি চালু করুক”। গতকাল অমিত শাহ মমতাকে কটাক্ষ করে বলেন, “সর্বশক্তি দিয়ে বাধা দিলেও এনআরসি ঠেকাতে পারবেন না মমতা দি। অনুপ্রবেশকারীদের মদত দিচ্ছে তৃণমূল।”
বিজেপি নেতারা মেরুকরণের রাজনীতিতে লিপ্ত হয়েছেন- বলে অভিযোগ তৃণমূলের। আর্থিক তছরুপ নিয়েও অমিত শাহ মমতাকে কটাক্ষ করে বলেছেন, “পশ্চিমবঙ্গকে গত পাঁচবছরে মোদী সরকার ৪ লক্ষ ২৪ হাজার কোটি টাকা দিয়েছিল। তৃণমূল সে টাকা আত্মসাৎ করেছে।” পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় অসমের বাঙালিদের স্বার্থে চাঁছাছোলা ভাষায় বিজেপিকে আক্রমণ করছেন- তার ফলে অসমে শক্ত হচ্ছে তৃণমূলের মাটি। দিদির জনপ্রিয়তা ক্রমশঃ বেড়ে চলেছে।
খবরসহ আমাদের ওয়েবসাইটে প্রকাশিত সব লেখা ফেসবুকে পেতে এখানে ক্লিক করুন এবং নোটিফিকেশনের জন্য লাইক দিন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here