ইতিহাস গড়া হলনা ভারতের, রুদ্ধশ্বাস লড়াইয়ে জিতে সিরিজ নিউজিল্যান্ডের

0
ছবি : সংগৃহিত
তরঙ্গ বার্তা, স্পোর্টস ডেস্ক : ইনিংসের ১৬তম ওভারে মহেন্দ্র সিং ধোনি যখন আউট হন, ভারতীয় দলের স্কোর তখন ৬ উইকেটে ১৪৫ রান। হাতে পর্যাপ্ত উইকেট ছিল না, শেষ ২৮ বলে দরকার ৬৮ রান। আসলে জয় পাওয়াটা কষ্টকরই ছিল।
কিন্তু দিনেশ কার্তিক আর ক্রুনাল পান্ডিয়া মিলে অবিশ্বাস্যভাবে দলকে ম্যাচে ফেরান। শেষ ওভারে তো দরকার ছিল মোটে ১৬ রান। দুই সেট ব্যাটসম্যান ছিলেন, জয়টা তখন খুব সম্ভব। কিন্তু হলো না, শেষ রক্ষা হলো না রোহিতদের।
হ্যামিল্টনে সিরিজের তৃতীয় ও শেষ টি-টোয়েন্টিতে দারুণ লড়াইয়ের পর টিম ইন্ডিয়া হেরেছে ৪ রানে। তাতে ২-১ ব্যবধানে সিরিজটা নিজেদের করে নিয়েছে স্বাগতিক নিউজিল্যান্ড।
টস হেরে ব্যাট করতে নেমে ৪ উইকেটে ২১২ রানের পাহাড়সমান এক পুঁজিই পেয়েছিল কিউইরা। ওপেনার কলিন মুনরো ৪০ বলে খেলেন ৭২ রানের বিধ্বংসী এক ইনিংস। কম বেশি ঝড় তুলেছেন বাকিরাও। আরেক ওপেনার টিম শেফার্ট করেন ২৫ বলে ৪৩। এছাড়া কেন উইলিয়ামসন ২৭ (২১ বলে) আর কলিন ডি গ্র্যান্ডহোমের ব্যাট থেকে আসে ৩০ রান (১৬ বলে)।
ভারতের সামনে লক্ষ্য ছিল ২১৩ রানের। বড় এই লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে একটা সময় নিশ্চিত হারের মুখে চলে গিয়েছিল সফরকারিরা। শেখর ধাওয়ান মাত্র ৫ রান করে সাজঘরের পথ ধরেন।
আরেক ওপেনার রোহিত শর্মা ৩৮ করলেও ৩২ বলের ইনিংসটা মোটেই টি-টোয়েন্টির সঙ্গে মানানসই ছিল না। মাঝে ঝড় তুলেছিলেন বিজয় শঙ্কর আর রিশাভ পান্ত। শঙ্কর ২৮ বলে ৪৩ আর পান্ত ১২ বলে ২৮ রান করে আউট হন।
এরপর হার্দিক পান্ডিয়াও খেলেন ১১ বলে ২১ রানের এক ইনিংস। কিন্তু তিনি আউট হবার পরের ওভারে অভিজ্ঞ ধোনিও মাত্র ২ রানে সাজঘরে ফিরলে বিপদে পড়ে ভারত। জয় তখন দূরের বাতিঘর।
সেখান থেকে দারুণভাবে দলকে লড়াইয়ে ফেরান দিনেশ কার্তিক আর ক্রুনাল পান্ডিয়া। যদিও বিজয়ের হাসি হাসতে পারেননি তারা। কার্তিক ১৬ বলে ৩৩ আর ক্রুনাল ১৩ বলে ২৬ রানে অপরাজিত থাকেন।
নিউজিল্যান্ডের পক্ষে ২টি করে উইকেট নেন মিচেল স্যান্টনার আর ডেরিল মিচেল। উল্লেখ্য, টানা টি-২০ সিরিজ জয়ে পাকিস্তানের রেকর্ড ভাঙা হলনা ভারতীয় দলের।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here