করোনা বিশ্বে প্রথম ফাইজারের ভ্যাকসিন :অনুমোদন ব্রিটেনের

0

সকল ভ্যাকসিন প্রস্তুতকারক কোম্পানিকে টপকে বিশ্বে প্রথম করোনা ভ্যাকসিন আনছে ফাইজার। আর সেটিকে অনুমোদন দিল যুক্তরাজ্য। বিশ্বের প্রথম দেশ হিসাবে ফাইজার/বায়োএনটেকের করোনাভাইরাস টিকার অনুমোদন দিয়েছে যুক্তরাজ্য। ব্রিটেনের নিয়ন্ত্রক সংস্থা, এমএইচআরএ বলছে, করোনাভাইরাস প্রতিরোধে ৯৫ শতাংশ সক্ষম এই টিকা। এখন ব্যবহারের জন্য এই টিকা নিরাপদ। আগামী কয়েকদিনের মধ্যেই সবচেয়ে বেশি ঝুঁকিতে থাকা মানুষজনের ওপর টিকার প্রয়োগ শুরু হবে। সব কিছু ঠিক থাকলে আগামী সপ্তাহেই টিকা দান শুরু হতে পারে বলে জানিয়েছে একটি সূত্র। এর মধ্যেই চার কোটি টিকার জন্য চাহিদা দিয়েছে যুক্তরাজ্য, যা দিয়ে দুই কোটি মানুষকে টিকা দেয়া যাবে।  জনপ্রতি দুইটি করে ডোজ দেয়া হবে। খুব তাড়াতাড়ি এক কোটি টিকার ডোজ পাওয়া যাবে।

টিকা প্রক্রিয়া সম্পন্ন করতে দশকের বেশি সময় লেগে যায়, সেখানে মাত্র ১০ মাসে এই টিকার আবিষ্কারের প্রক্রিয়া শেষ করা হলো। এই ভ্যাকসিনকে মাইনাস ৭০ ডিগ্রি তাপমাত্রায় রাখতে হবে এবং ড্রাই আইস প্যাক করা বিশেষ বক্সে নিয়ে যেতে হবে। ডেলিভারি হওয়ার পর তা পাঁচদিন ফ্রিজে রাখা যেতে পারে। বিশেষজ্ঞরা ইতিমধ্যেই প্রাথমিক অগ্রাধিকার সংক্রান্ত তালিকা তৈরি করেছেন। এক্ষেত্রে যাঁদের সংক্রমণের ঝুঁকি সবচেয়ে বেশি, সে কথা মাথায় রেখেই এই তালিকা তৈরি হয়েছে। তালিকার প্রথমে রয়েছেন কেয়ার হোমের বাসিন্দা ও কর্মীরা। এরপর ৮০ বছরের বেশি লোকজন এবং স্বাস্থ্য ও সামাজিক পরিষেবার সঙ্গে যুক্ত কর্মীরা। আগামী সপ্তাহেই তাঁরা ভ্যাকসিনের প্রথম ডোজ পেয়ে যাবেন বলে অপর এক সূত্র জানিয়েছে।
৫০ বছরের উর্ধ্বে বা কোমর্বিডি সম্পন্ন অপেক্ষাকৃত অল্পবয়সীদের টিকাদানের কাজ ভ্যাকসিনের সরবরাহ অনুযায়ী আগামী বছরের শুরুতেই হতে পারে। এই ভ্যাকসিনের জন্য ২১ দিনের ব্যবধানে দুটি ডোজ দিতে হবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here