কাছাড়ে বিজেপি ঝড়ে মাথা তুলতে পারছেনা কংগ্রেস, গোহারা হারলো এইউডিএফ

আজমলের রাজনৈতিক ভবিষৎ কোন পথে?

0
ছবি : সংগৃহিত

আব্দুল করিম বড়ভুইয়া, তরঙ্গ বার্তা, জলালপুর : সারা দেশে যখন বিজেপিকে আলবিদা জানানো শুরু হয়েছে, তখনও কাছাড়ে বিজেপি ঝড়ে মাথা তুলতে পারছেনা কংগ্রেস। সম্প্রতি পাঁচ রাজ্যের বিধানসভা নির্বাচনে বিজেপির ভরাডুবির পরও এবারের পঞ্চায়েত নির্বাচনে কাছাড়ে কংগ্রেস দ্বিতীয় স্থানে। কংগ্রেসের এমন অবস্থা কেন? এর পিছনে রয়েছে অনেক কারন।

এর মধ্যে রয়েছে সুষ্ঠভাবে দলীয় টিকিট বণ্টন হয়নি। যারা টিকিট পেয়ে ছিলেন, এদের অনেকের গায়ে রয়েছে কলংকের কালিমা। সবচেয়ে বড় ব্যাপার হল কাছাড় কংগ্রেসে গণতন্ত্র বলতে কিছুই নেই। দেব পরিবারের রাজনীতিতে সংখ্যালঘু অনেক নেতা অখুশী। যেহেতু কংগ্রেসের এখন একমাত্র  সংখ্যালঘু ভোট ভরসা।

সেখানে সংখ্যালঘু মানুষকে কাছে টানতে পারছেন না কাছাড় কংগ্রেস নেতারা। যতদিন পর্যন্ত সংখ্যালঘু নেতাদের কংগ্রেস দুরে ঠেলে রাখবে, ততদিন কাছাড়ে কংগ্রেসের আধিপত্য বিস্তার সম্ভব নয়।

অপরদিকে কংগ্রেসের দুর্বলতাকে হাতিয়ার করে বিজেপির উত্থান এবারও কাছাড়ে বহাল রয়েছে। তাছাড়া কৌশলে বিজেপিও সংখ্যালঘু ভোটের একটা ছোট অংক নিজেদের অনুকুলে নিতে সক্ষম হয়েছে। এর কারন হচ্ছে, কংগ্রেসি অনেক নেতার উপর বিভিন্ন কারনে অখুশী জেলার সংখ্যালঘু মানুষ।

অপরদিকে কিন্তু ইউডিএফের হাল এমন বেহাল, যে  আর কোন দিনও হয়তো কোন প্রার্থী ইউডিএফ টিকিট নিয়ে লড়াই করার সাহস দেখাতে পারবে না। এই বেহাল অবস্থায়  এইউডিএফের ভবিষৎ কোন পথে ? প্রশ্ন উঠছে সর্বত্র। পঞ্চায়েত্ নির্বাচনের প্রচারে কোন খামতি ছিল না কাছাড়ে।  ইউডিএফ  দলের জেলা কমিটি, কেন্দ্রীয় কমিটি, এমনকি দলের সুপ্রিমো বদরুদ্দিন আজমলও কপ্টার নিয়ে দলের প্রচারে এসে চমক দিয়ে ছিলেন।

 

বদরুদ্দিনের প্রচারে খরচ কম হয় নি।  এতদ্বসত্তেও পঞ্চায়েত ভোটেভোটে কাছাড়ে গো হারা হারলো এইউডিএফ । ২টি জেলা পরিষদের একটিও দখল করতে পারেনি। ১৬২ টি আঞ্চলিক পঞ্চায়েত্ সদস্যের একটিও জিততে পারেনি এইউডিএফ। পঞ্চায়েত্ সভাপতি ১৬২ টি টি পদে মাত্র ১ টি আসন জিতে খাতা খুলছে  এইউডিএফ।  কাছাড়ে ১৫৭১টি ওয়ার্ড সদস্যের মধ্যে মাত্র ১৮টি ওয়ার্ড সদস্য জিতেছে এইউডিএফ।  সবমিলে কাছাড়ে ইউডিএফের হাল বেহাল।  এবারের পঞ্চায়েত নির্বাচনে ইউডিএফের বেহাল অবস্থা আগামী দিনের জন্য দলের অশুভ সংকেত বলে মনে করছেন অভিজ্ঞ মহল।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here