হিন্দু-মুসলিম বিভাজন ঘটিয়ে ভারতবর্ষকে ফের টুকরো করতে চাইছে বিজেপি : রিপুন বরা

0
ছবি : নিজস্ব
নিজস্ব সংবাদদাতা, তরঙ্গ বার্তা, লালা : হিন্দু-মুসলিমদের মধ্যে উগ্র সাম্প্রদায়িকতার মাধ্যমে বিভাজন ঘটিয়ে ভারতবর্ষকে ফের টুকরো করতে চাইছে বিজেপি। এই সরকারের হাতে দেশ সুরক্ষিত নয়। প্রধান মন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী দেশের সম্পদ নির্বিচারে বিক্রি করে যাচ্ছে বিদেশি পুঁজিপতিদের হাতে। তাই দেশকে সুরক্ষিত রাখতে বিজেপিকে পরাস্ত করার ডাক দিলেন আসাম প্রদেশ কংগ্রেস কমিটির সভাপতি রিপুন বরা।
শুক্রবার হেলিকপ্টার নিয়ে লালার দক্ষিন জষ্ণাবাদ নতুনবাজার এলাকায় করিমগঞ্জের কংগ্রেস প্রার্থী স্বরুপ দাসের নির্বাচনি প্রচারে এসে এভাবে বিজেপি এআইইউডিএফ দলের সমালোচনায় মুখর হন রিপুন বরা।
তিনি তার দীর্ঘ বক্তব্যে গেরুয়া দল এবং এআইইউডিফ দলকে চাছাছোলা ভাষায় বিদ্ব করেন। বলেন, বিভিন্ন ভাষাভাষীর মানুষ নিয়ে গঠিত ভারতবর্ষ। বর্তনামে বিজেপি ক্ষমতায় আসার পর দেশ এবং দেশের জনগণ কোনোক্রমে সুরক্ষিত নয়। আরএসএস পরিচালিত বিজেপি সরকার দেশকে চরম ক্ষতির মুখে ঠেলে দিচ্ছে। একদিকে সাম্প্রদায়িকতার জেরবার অন্যদিকে বিদেশির হাতে দেশের মুল্যবান সম্পদ তুলে দিয়ে মোদী দেশকে অধঃপতনের দিকে ধাবিত করছে।
কংগ্রেসের শাসন ব্যবস্থায় দেশে এমন পরিস্থির সৃষ্টি হয়নি। সর্বধর্মকে সাথে নিয়ে চলছে কংগ্রেস। বর্তমানে বিজেপি সরকার একতরফা মনোভাব নিয়ে কাজ করছে। এই বিজেপিকে ক্ষমতায় আনার পিছনে মুল নায়ক হলেন এআইইউডিফের সুপ্রিমো বদরুদ্দিন আজমল। একজন ইণ্টারন্যাশন্যাল ব্যাবসায়ী নিজের ব্যাবসা বাঁচাতে সমস্ত মুসলিমকে বিজেপির হাতে তুলে দিয়ে নিজে ফায়দা লুটার চেষ্টা করছেন।

বিগত কংগ্রেস সরকারের আমলে শত শত প্রকল্প চালু করা হয়েছিল সাধারণ গরিব মানুষের কল্যাণের কথা চিন্তা করে। কিন্তু বিজেপি সরকার এসে অনেক প্রকল্প বন্ধ করে দিয়েছে।
তিনি আর‌ও বলেন, কংগ্রেস সাম্প্রদায়িকতার প্রশ্রয় দেয় না। আর মোদি সরকারের মতো মিথ্যা প্রতিশ্রুতি দেয় না। এই সাম্প্রদায়িক ও মিথ্যাবাদী বিজেপি সরকারকে বর্জন করে কংগ্রেস সরকারকে ক্ষমতায় আনার দাবি জানান। পাশাপাশি বলেন, মাওলানা বদর উদ্দিনের সাথে কংগ্রেসের কোনো মিত্রতা নেই। এই বদরের দল বিজেপির সাথে হাত মিলিয়ে কাজ করছে।কিছুদিন পর এআইইউডিএফ দলের কোনো অস্তিত্ব থাকবে না।
যার প্রমাণ তুলে ধরে বলেন, এবার সাংসদ নির্বাচনে ১১ টি আসনে প্রার্থী দিতে পারে নাই এআইইউডিএফ। কোন রহস্যে প্রার্থী দেন নাই তা সবার জানা। মাত্র তিনটি আসনে প্রার্থী দিয়ে কি করবেন? এই আসন জিতলে কোনো লাভ হবে না। সরকার গঠন করবে কংগ্রেস। আর স্বরুপ দাস জয়ী হলে সরকার থেকে ফান্ড এনে করিমগঞ্জ আসনে উন্নয়নের জোয়ার বইয়ে দেবে বলে জানান রিপুন বরা।

এদিনের সভায় অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন, অসমের প্রাক্তন মন্ত্রী সিদ্দেক আহমেদ, অসম প্রদেশ কংগ্রেসের সম্পাদক দিলোয়ার হোসেন বড়ভুইয়া, দাইয়ান হোসেন, জেলা কংগ্রেসের সভাপতি জয়নাল উদ্দিন, লালা ব্লক কংগ্রেসের সম্পাদক শুভ্রজ্যোতি নাথ, প্রকাশ চান্দ সুরানা, একলাছ উদ্দিন বড়ভুইয়া, মন্টু লস্কর প্রমুখ।

এদিনের নির্বাচনি সভার আয়োজনে এবং সঞ্চালনায় ছিলেন এপিসিসির সম্পাদক দিলোয়ার হোসেন বড়ভুইয়া।
খবরসহ আমাদের ওয়েবসাইটে প্রকাশিত সব লেখা ফেসবুকে পেতে এখানে ক্লিক করুন এবং নোটিফিকেশনের জন্য লাইক দিন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here