কলকাতায় ২৪ লাখ টাকা সহ হাতে নাতে পাকড়াও বিজেপি নেতা-সহ ৩

0
ছবি : সংগৃহিত
তরঙ্গ বার্তা, ডিজিটাল ডেস্ক : বিপুল পরিমান নগদ টাকা সহ পাকড়াও হলেন দক্ষিণ ২৪ পরগনার বিজেপির এক জেলা নেতা। তাঁর সঙ্গে ধরা পড়েছেন আরও দুই মহিলা কর্মী। ধৃত বিজেপি নেতাদের কাছ থেকে উদ্ধার হয়েছে ২৪ লক্ষের বেশি টাকা। বাজেয়াপ্ত করা হয়েছে গাড়ি। দলীয় নেতার টাকা সহ ধরা পড়ার ঘটনায় প্রতিক্রিয়া দিতে চাননি বঙ্গ বিজেপির কোনও নেতা।
পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, বৃহস্পতিবার রাতেই গোপন সূত্রে খবর আসে বারুইপুর বিজেপি অফিস থেকে টাকা নিয়ে জয়নগরের দিকে যাচ্ছেন। তিনি হলেন দলের বারুইপুর পূর্ব মণ্ডলের সাধারণ সম্পাদক মিন্টু হালদার। সেইমতো সতর্ক হয়ে যান জয়নগর, বারুইপুর মহিলা থানার আইসি ও বকুলতলার ওসি। ম্যাজিস্ট্রেট পর্যায়ের এক আধিকারিককে সঙ্গে নিয়ে রাত দশটা নাগাদ জয়নগর থানার বুড়োর ঘাটের কাছে ডব্লিউবি-২০ জেড ৬১২২ নম্বরের গাড়িটিকে তাড়া করে দাঁড় করিয়ে তল্লাশি শুরু করা হয়। তল্লাশির সময়ে গাড়িতে থাকা মিন্টু হালদার ও তার দুই সহকর্মী সরস্বতী হালদার ও নমিতা সর্দারের ওড়না ও সায়ার নিচ থেকে উদ্ধার করা হয় ২৪ লক্ষ ১২ হাজার টাকা।
নিউজ আপডেট পান সরাসরি আপনার হোয়্যাটসেপ-এ। আমাদের হোয়্যাটসেপ গ্রূপে যুক্ত হতে ক্লিক করুন…
জেরার মুখে ধৃত তিনজনেই স্বীকার করেছে, বারুইপুরে বিজেপির কার্যালয় থেকেই ভোটের খরচের জন্য ওই বিপুল টাকা নিয়ে বাড়ি ফিরছিলেন তারা। তিনজনকেই সঙ্গেসঙ্গে গ্রেফতার করা হয়। বিজেপি নেতারা যাতে ফাঁসানোর চক্রান্ত হাজির করে উদোর পিণ্ডি বুধোর ঘাড়ে না চাপাতে পারেন, তার জন্য গোটা তল্লাশি প্রক্রিয়া ও ধৃতদের স্বীকারোক্তির ভিডিওগ্রাফি করেছে পুলিশ আধিকারিকরা।

বিপুল পরিমাণ টাকা সহ বিজেপি নেতার পাকড়াও হওয়ার খবর ইতিমধ্যেই নির্বাচন কমিশনের আধিকারিকদের গোচরে আনা হয়েছে। প্রসঙ্গত, গত রবিবারই নগদ ১ কোটি টাকা সহ আসানসোল জিআরপির হাতে ধরা পড়েছিলেন রাজ্য বিজেপি সভাপতি দিলীপ ঘোষের আপ্ত সহায়ক গৌতম চট্টোপাধ্যায় ও তার সহযোগী লক্ষ্মীকান্ত সাউ। যার ফলে যথেষ্টই অস্বস্তিতে পড়তে হয়েছিল রাজ্য বিজেপি নেতৃত্বকে। এদিন ফের এক বিজেপি পদাধিকারীর টাকা সহ ধরা পড়ার ঘটনা গেরুয়া শিবিরের অস্বস্তি অনেকটাই বাড়িয়ে তুলল।
খবরসহ আমাদের ওয়েবসাইটে প্রকাশিত সব লেখা ফেসবুকে পেতে এখানে ক্লিক করুন এবং নোটিফিকেশনের জন্য লাইক দিন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here