লোকসভা নির্বাচনের প্রাক্কালে ত্রিপুরার বিশালগড়ে তাজা বোমা উদ্ধার, এলাকায় আতঙ্ক

0
ছবি : নিজস্ব
নিয়াজ আহমদ, তরঙ্গ বার্তা, আগরতলা : রবিবার প্রকাশ্য দিবালোকে ত্রিপুরার প্রাক্তন মন্ত্রী তথা বর্ষীয়ান সিপিআইএম নেতা ভানুলাল সাহার বিশালগড়স্থিত বাড়ির পাশে কে বা কারা তাজা বোমা রেখে যাওয়ার ঘটনাকে কেন্দ্র করে এলাকায় তীব্র আতঙ্কের সৃষ্টি হয়েছে।
পার্শ্ববর্তী বাড়ির এক মহিলা বোমাটি দেখে ফেলায় অল্পেতে রক্ষা মিলেছে। কোন কারণে বিস্ফোরণ ঘটলে ভয়ঙ্কর আকার ধারণ করত বলে অভিমত ব্যাক্ত করেছেন স্থায়ীয়রা। নির্বাচন যতই এগিয়ে আসছে সন্ত্রাসের মাত্রা ততটা তীব্র হচ্ছে।
ফের বোমাতঙ্কে চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে বিশালগড়ে। রবিবার বিকেল সাড়ে চারটা নাগাদ বোমা নিক্ষেপ হয়েছে বিধায়ক ভানুলাল সাহার দেওয়াল ঘেঁসা বাড়ি দুলদুল সেন গুপ্তের বাড়িতে। যদিও বোমাটি বিস্ফোরণ হয়নি।
তরতাজা বোমা দেখে আতঙ্কগ্রস্ত হয়ে পড়েন গৃহিনী স্মৃতি সেনগুপ্ত। তার চিৎকারে ছুটে আসেন পাড়া পড়শিরা। ছুটে আসে বিশালগড় থানার পুলিশও। পরে বোমাটি নিস্ক্রীয় করে থানায় নিয়ে যায় পুলিশ।
এদিকে, ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে বিধায়ক ভানুলাল সাহা বলেন, রবিবার বিকেল নাগাদ তাঁর বাড়িসংলগ্ন দেওয়ালের পাশে কে বা কারা তাজা বোমাটি রেখে যায়। এটি বিস্ফোরিত হলে ভয়ঙ্কর আকার ধারণ করতে পারত। এলাকায় অশান্তির পরিবেশ কায়েম করার লক্ষ্যেই এধরনের চক্রান্ত লিপ্ত হয়েছে চক্রান্তকারীরা।
পরিবেশকে বিষিয়ে তুলে, আতঙ্কগ্রস্ত করে তুলে, ভোটারদের ভোটকেন্দ্রে যাওয়ার ক্ষেত্রে বাধা সৃষ্টির চেষ্টা চালানো হচ্ছে বলে অভিযোগ করেন প্রাক্তন মন্ত্রী ভানুলাল সাহা। তিনি বলেন, বিধানসভা কেন্দ্রের এই এলাকাতে সিপিএমের প্রভাব সবচেয়ে বেশি। এখানকার ৮০ শতাংশ ভোটর সিপিএমের। সে কারণেই গত কিছুদিনের মধ্যে ৫টি স্থানে বোমা নিক্ষেপ করে আতঙ্ক সৃষ্টির চেষ্টা করা হয়েছে।
প্রথম চারটি ক্ষেত্রে রাতের বেলা বোমা নিক্ষেপ করা হয়। রবিবার প্রকাশ্য দিবালোকেই তাজা বোমা রেখে যায় আতঙ্ক সৃষ্টিকারিরা। এ ধরনের ঘটনার তীব্র নিন্দা জানিয়েছেন প্রাক্তন মন্ত্রী ও বর্ষীয়ান সিপিআইএম নেতা ভানুলাল সাহা।
খবরসহ আমাদের ওয়েবসাইটে প্রকাশিত সব লেখা ফেসবুকে পেতে এখানে ক্লিক করুন এবং নোটিফিকেশনের জন্য লাইক দিন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here