গুজরাত দাঙ্গার পর মোদীকে বরখাস্ত করতে চেয়েছিলেন অটল বিহারি বাজপেয়ি

0
ছবি : সংগৃহিত
তরঙ্গ বার্তা, ডিজিটাল ডেস্ক : ২০০২ সালের গুজরাত দাঙ্গার পর রাজ্যের তৎকালীন মুখ্যমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে বরখাস্ত করার সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন তখনকার প্রধানমন্ত্রী অটল বিহারি বাজপেয়ি।
মোদী নিজে থেকে না সরলে গুজরাত সরকারকে বরখাস্ত করা হবে – এমনটাই ছিল তার পরিকল্পনা। শনিবার ভোপালের এক সংবাদ সম্মেলনে এসে এ বিস্ফোরক মন্তব্য করলেন প্রাক্তন অর্থমন্ত্রী তথা বিজেপি নেতা যশবন্ত সিনহা।
তিনি জানান, তখনকার স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী এলকে আদভানি বেঁকে বসায় শেষ মুহূর্তে ওই সিদ্ধান্ত থেকে সরে আসেন বাজপেয়ি।

সিনহার দাবি, গুজরাতে সাম্প্রদায়িক দাঙ্গার পর বাজপেয়ি সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন নরেন্দ্র মোদীকে দল থেকে পদত্যাগে বাধ্য করাবেন। ২০০২ সালে গোয়ায় জাতীয় নির্বাহী কমিটির বৈঠকে অটল বিহারি এমন মনস্থির করেন। বলা হয়, মোদী পদত্যাগ না করলে গুজরাতের সরকার ভেঙে দেওয়া হবে। সিনহা বলেন, একটি দলীয় বৈঠক হয়েছিল। আমি যতদূর জানি, আদভানি এই সিদ্ধান্তের ঘোর বিরোধী ছিলেন।
তিনি অটল বিহারিকে বলেছিলেন, যদি মোদীকে দল থেকে বহিষ্কার করা হয়, তবে তিনি নিজে সরকার থেকে ইস্তফা দেবেন। অগত্যা সিদ্ধান্ত বদলাতে হয় বাজপেয়িকে।
নিউজ আপডেট পান সরাসরি আপনার হোয়্যাটসেপ-এ। আমাদের হোয়্যাটসেপ গ্রূপে যুক্ত হতে ক্লিক করুন…
রাজিব গান্ধী আইএনএস বিরাটকে ব্যক্তিগত ট্যাক্সির মতো ব্যবহার করতেন, বিজেপির একাংশের এই অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতেও মুখ খুলেছেন যশবন্ত সিনহা।
তিনি বলেছেন, দেশের একজন প্রধানমন্ত্রী আরেক প্রধানমন্ত্রী সম্পর্কে এমন ভাষায় কথা বলতে পারেন না। নির্বাচনে এসব কোনো ইস্যুই নয়। তাছাড়া এই নিয়ে প্রাক্তন নৌ কর্মকর্তা তাদের বিবৃতি জানিয়ে দিয়েছে।
একই সঙ্গে মোদীর প্রতি তার হুশিয়ারি, ‘এই নির্বাচন হচ্ছে সরকারের কাজকর্মের নিরিখে, দেশের ইতিহাস নিয়ে নয়।’ পাকিস্তান প্রসঙ্গ তুলে এনে তাকে লোকসভার মূল বিষয় করে তোলাকেও তীব্র সমালোচনা করেছেন যশবন্ত সিনহা।

এ প্রসঙ্গে তিনি বলেছেন, আমরা পাকিস্তানের সমতুল্য দেশ? মোদী ভারত আর পাকিস্তানকে হাইফেনের এদিক ওদিকে বসিয়েছে।
দুই দেশকে সমগোত্রীয় করে তুলেছে। কই চীনকে নিয়ে তো কোনো আলোচনা হয় না? কেন হয় না? কারণ পাকিস্তানের প্রসঙ্গ তুললে দেশের মানুষের কাছ থেকে যে প্রতিক্রিয়া পাবে, চীনকে নিয়ে তেমন পাওয়া যাবে না।
খবরসহ আমাদের ওয়েবসাইটে প্রকাশিত সব লেখা ফেসবুকে পেতে এখানে ক্লিক করুন এবং নোটিফিকেশনের জন্য লাইক দিন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here