হিজাব পরে মহানবীর উদ্ধৃতি দিয়ে শান্তির বার্তা, নিউজিল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রীকে হত্যার হুমকি

0
ছবি : সংগৃহিত
তরঙ্গ বার্তা, ডিজিটাল ডেস্ক : নিউজিল্যান্ডের ক্রাইস্টচার্চের হামলার শোক প্রকাশ করে গত শুক্রবার আল নুর মসজিদের কাছে হেগলি পার্কে কয়েক হাজার মানুষ সমবেত হয়েছিলেন। সেখানে যোগ দিয়েছিলেন প্রধানমন্ত্রী জেসিন্ডা আর্ডার্নও। তিনি মুসলিম সম্প্রদায়ের প্রতি সংহতি প্রকাশ করে তাদের উদ্দেশে বলেন, নিউজিল্যান্ড আপনাদের দুঃখে ব্যাথিত। আমরা সবাই এক।
এর আগে মহানবী হযরত মোহাম্মদ (সা.)-এর উদ্ধৃতি দিয়ে প্রধানমন্ত্রী জেসিন্ডা বলেন, পারস্পরিক উদারতা, সমবেদনা এবং সহানুভূতিতে বিশ্বাসীরা একটি শরীরের মতো। যখন শরীরের কোন একটি অংশ ব্যথা পায় তখন পুরো শরীরই সেই ব্যথা অনুভব করতে পারে।
ক্রাইস্টচার্চের হামলার এক সপ্তাহ পর এদিন সেখানকার বেশিরভাগ নারীই মাথায় হিজাব পড়ে নিহতদের স্মরণ করেছেন। হিজাব পরেছিলেন নিউজিল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী জেসিন্ডা আর্ডার্নও। শুক্রবার দুপুর দেড়টার দিকে আজান এবং জুমার নামাজ রাষ্ট্রীয় টেলিভিশন এবং রেডিওতে সরাসরি সম্প্রচার করা হয়। এর পরেই ১টা ৪৮ মিনিটের দিকে জেসিন্ডাকে হত্যার হুমকি দেওয়া হয়।
সোশ্যাল সাইটে নিউজিল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী জেসিন্ডা আর্ডার্নকে হত্যার হুমকি দেয়া হয়েছে। এই ঘটনা খতিয়ে দেখছে দেশটির পুলিশ। ট্যুইটারে ‘ইউ আর নেক্সট’ লেখা ক্যাপশনসহ একটি বন্দুকের ছবি পাঠিয়ে হুমকি দেওয়া হয়েছে জেসিন্ডাকে।
নিউজিল্যান্ড হেরাল্ডের এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, সোশ্যাল সাইটে বেশ কয়েকজন ওই পোস্টের বিরুদ্ধে রিপোর্ট করায় যে ওই পোস্ট দিয়েছেন তার অ্যাকাউন্ট বন্ধ হয়ে গেছে। ধারণা করা হচ্ছে, ট্যুইটার অ্যাকাউন্ট বন্ধ হওয়ার ৪৮ ঘণ্টারও বেশি সময় আগে এটি পোস্ট করা হয়েছিল।
‘নেক্সট ইট’স ইউ’ লেখা এ ধরনের আরও একটি পোস্টে প্রধানমন্ত্রী জেসিন্ডা এবং নিউজিল্যান্ডের পুলিশকে ট্যাগ করা হয়েছে। বন্ধ করে দেওয়া ট্যুইটার অ্যাকাউন্টে মুসলিমবিরোধী বিভিন্ন বিষয় ছিল এবং সেখানে হোয়াইট সুপ্রিমেসি বা শ্বেতাঙ্গ আধিপত্যের পক্ষ নিয়ে বিভিন্ন ঘৃণামূলক বিবৃতিও ছিল।
এক বিবৃতিতে পুলিশের মুখপাত্র বলেন, ট্যুইটারে যে মন্তব্য করা হয়েছে সে বিষয়ে সতর্ক রয়েছে পুলিশ এবং এ বিষয়ে তদন্ত করা হচ্ছে। গত শুক্রবার নিউজিল্যান্ডের ক্রাইস্টচার্চে দুটি মসজিদে হামলার ঘটনার পর মুসলিম সম্প্রদায়ের প্রতি সংহতি প্রকাশ করায় জেসিন্ডাকে এমন হুমকি দেওয়া হচ্ছে বলে ধারণা করা হচ্ছে।
খবরসহ আমাদের ওয়েবসাইটে প্রকাশিত সব লেখা ফেসবুকে পেতে এখানে ক্লিক করুন এবং নোটিফিকেশনের জন্য লাইক দিন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here