মুসলিম বৃদ্ধকে গোমাংস বিক্রির অভিযোগে নির্যাতন, জোর করে খাওয়ানো হল শুয়োরের মাংস!

0
ছবি : সংগৃহিত
তরঙ্গ বার্তা, ডিজিটাল ডেস্ক : ফের একবার গোরক্ষকদের তাণ্ডবে উত্তাল গোটা দেশ। এইবার গোমাংস বিক্রেতাকে নিগ্রহ করা হল অসমে৷ ওই অভিযোগ ঘিরে উত্তাল রাজ্যের বিশ্বনাথ চারিয়ালি এলাকা৷ গোমাংস বিক্রি করার অভিযোগে ৬৮ বছর বয়সী এক ব্যবসায়ীকে বেধড়ক মারধর করে উত্তেজিত জনতা৷ এমনকি তাঁকে জোর করে শূকরের মাংসও খাওয়ানো হয় বলে অভিযোগ৷
ঘটনাটি ঘটেছে ৭ এপ্রিল বিশ্বনাথ চারিয়ালি বাজার এলাকায়৷ ওই গোটা ঘটনাটি সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়ে যায়৷ ওই ভিডিওটিতে দেখা গিয়েছে, একজন মুসলিম বয়স্ক ব্যক্তি বাজারের মধ্যে জল কাদায় মাখামাখি হয়ে বসে রয়েছেন, তাঁকে ঘিরে রয়েছে উত্তেজিত জনতা৷ তিনি বাজারের মধ্যে গোমাংস বিক্রি করছিলেন বলে অনুমান করে জনতা৷ তারপরেই শুরু হয় নিগ্রহ৷
উত্তেজিত জনতা তাঁকে চিৎকার করে জিজ্ঞাসা করছে নাগরিকত্ব রয়েছে কিনা। এবং ওই বয়স্ক ব্যক্তিকে জিজ্ঞাসা করা হয় এনআরসি সার্টিফিকেট তাঁর রয়েছে কিনা, নাকি তিনি বাংলাদেশী৷ আপনার কি গরুর বিক্রি করার লাইসেন্স আছে ? পরে ওই ঘটনার খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে ছুটে আসে স্থানীয় পুলিশ। তাঁকে উদ্ধার করে স্থানীয় একটি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।
পুলিশ সূত্রে জানা যায়, আক্রান্ত ওই ব্যক্তির নাম সওকত আলি। সে গত ৩৫ বছর ধরে ওই বাজারের ব্যবসায়ী৷ সেখানেই তিনি গোমাংস বিক্রি করেন৷ তবে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণের বাইরে চলে যায় যখন ওই ব্যবসায়ীকে শূকরের মাংস খেতে বাধ্য করা হয়৷ মারধরের ঘটনায় বেশ আহত হয়েছেন ওই ব্যবসায়ী৷ তাঁকে স্থানীয় হাসপাতালে পরে ভর্তি করা হয়৷ শুধু শওকত আলিই নয়, ওই বাজারের ম্যানেজারকেও নিগ্রহ করা হয় বলে অভিযোগ৷ ওই ঘটনায় অজ্ঞাত পরিচয়ের বিরুদ্ধে স্থানীয় থানায় অভিযোগ দায়ের করেছে পুলিশ৷
খবরসহ আমাদের ওয়েবসাইটে প্রকাশিত সব লেখা ফেসবুকে পেতে এখানে ক্লিক করুন এবং নোটিফিকেশনের জন্য লাইক দিন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here