বর্বর কাণ্ড! ক্লাস সেভেনের উপজাতি ছাত্রীকে গণধর্ষণ, গ্রেপ্তার এক

0
ছবি: সংগৃহিত

ত্রিপুরা রাজ্যে নারী নির্যাতন যেন দিন দিন বেড়েই চলছে। প্রতিদিন রাজ্যের কোথাও না কোথাও নারী নির্যাতন, নারী ধর্ষণ সংবাদ শিরোনাম হচ্ছে। এমনই একটি ঘটনা ঘটে গেল বিশ্রামগঞ্জ বংশী বাড়ি এলাকায়। ক্লাস সেভেনের এক ছাত্রীকে ৪ যুবক মিলে গণধর্ষণ করার খবর প্রকাশ্যে আসে।

দিল্লি নির্ভয়া কাণ্ডে দোষীদের শাস্তি, তেলেঙ্গানার নারী নির্যাতনকারীদের এনকাউন্টার করার খবর ফলাও করে সারা ভারতবর্ষে ছড়িয়ে পড়লেও নারী নির্যাতন যেন থেমে নেই।

ঘটনার বিবরণে জানা যায়, গত ১৬ আগস্ট সিপাহিজলা জেলার বিশ্রামগঞ্জ বংশী বাড়ি এলাকায় একটি ১৫ বছর বয়সের উপজাতি মেয়ে পার্শ্ববর্তী তার বোনের বাড়িতে সন্ধ্যার সময় টিভি দেখতে যায়। টিভি দেখে ফিরে আসার সময় এলাকারই একটি যুবক বিকু দেববর্মা তার মুখে চাপা দিয়ে একটি সাদা ভ্যানগাড়িতে জোরপূর্বক তুলে নিয়ে যায়। পরবর্তী সময় কোন এক নির্জন জায়গায় নিয়ে গিয়ে তার আরও তিন বন্ধু মিলে মেয়েটির শরীরে ড্রাগস পুশিং করে চার যুবক মিলে সেই মেয়েটির ওপর পাশবিক লালসা চরিতার্থ করে।

অন্যদিকে, মেয়েটির পরিবার ১৬ তারিখে মেয়ে বাড়িতে না আসার পরই বিশ্রামগঞ্জ থানায় মিসিং ডায়েরি করেন। সোমবার আচমকাই মেয়েটি বাড়িতে আসলে পরিবারের লোক জনেরা তাকে জড়িয়ে ধরেন। মেয়েটি তার পরিবারের কাছে সম্পূর্ণ কাহিনী বলার পরে বিশ্রামগঞ্জ থানায় ঘটনা জানানো হয়। বিশ্রামগঞ্জ পুলিশ মঙ্গলবার অভিযুক্ত বিকু দেববর্মাকে গ্রেপ্তার করে। কিন্তু অপর অভিযুক্তদের গ্রেপ্তার করার দাবিতে বিভিন্ন সমাজসেবী সংগঠন বিশ্রামগঞ্জ থানায় বিক্ষোভ প্রদর্শন করেন। এবং অবিলম্বে অপর অভিযুক্তদের গ্রেপ্তার করে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি তোলেন। অপর তিন পাষণ্ড কত দ্রুত পুলিশের জালে আটকা পড়ে তা লক্ষণীয়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here